আজ- মঙ্গলবার, ১২ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৭শে জুলাই, ২০২১ ইং

অক্সিজেন সেবা নিয়ে মানুষের পাশে ‘বন্ধন পিরোজপুর’

সারাদেশ করোনার মহামারির কারণে সংকট দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের। আর এই দুর্যোগকালীন সময়ে মানুষের পাশে অক্সিজেন নিয়ে দাঁড়িয়েছে স্বেচ্ছাসেবী  সংগঠন ‘বন্ধন পিরোজপুর’। পিরোজপুর, ঢাকাসহ দেশ ও বিদেশের বিভিন্ন  স্থানে বসবাসরত পিরোজপুরের সন্তানদের তৈরী করা সংগঠনটির নেতৃত্ব দিচ্ছেন সভাপতি ডিআইজি মো. হায়দার আলী খান এবং সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট শামীমা  ফেরদৌস মিলি।

একঝাঁক স্বেচ্ছাসেবকদের সাথে নিয়ে সংগঠনটি পিরোজপুরে ‘বন্ধন অক্সিজেন সেবা’ চালু করেছে। সংগঠনের দেয়া মোবাইল নাম্বারগুলোতে কল করলেই দ্রুত রোগীর কাছে পৌঁছে দেয়া হবে অক্সিজেন সিলিন্ডার। মোবাইল নাম্বার- এডভোকেট আহসানুল কবির বাদল: ০১৭১২৬৬২৮২৮, দেলোয়ার খান: ০১৭১১৩০৯২৬৩, আক্তারুজ্জামান মাসুম: ০১৬৭৮৮৮৮৮৮৮, শেখ রশিদ আল মামুন: ০১৯১৬৭০০১৫৬ এবং গোলাম মাওলা: ০১৯৭৬৯২৮৬৮৬। এর যে কোন নাম্বারে কল করলে পাওয়া যাবে অক্সিেেজন সেবা।

পিরোজপুরে করোনা রোগীর সংখ্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়লেও এখানে পর্যাপ্ত পরিমাণ অক্সিজেন সাপোর্ট না থাকার কারণে সংগঠনের সদস্যরা অক্সিজেন সংগ্রহ করে বিনামূল্যে করোনা রোগীদের অক্সিজেন সেবা দিয়ে যাচ্ছে।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক শামীমা ফেরদৌস মিলি বলেন, বর্তমান করোনা দুর্যোগে বিবেকের তাড়নায় আমরা বন্ধন পিরোজপুরের সদস্যরা ব্যক্তিগত উদ্যোগে পিরোজপুরে অক্সিজেন সেবা চালু করেছি। মানব প্রেমে ‘বন্ধন পিরোজপুর’ সব সময় পিরোজপুরের মানুষের পাশে ছিল, আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে। এই আঁধার কেটে আলো আসবেই। করোনামুক্ত যে নতুন ভোরের স্বপ্ন আমরা দেখি সেই ভোর বেশি দূরে নয়। অন্ধকারের অমানিশা ভেদ করে নতুন ভোরের মাধ্যমে সুখের সোনালি সূর্য আবার ফিরে আসবে। অন্ধকার সময়ে আলোর স্ফুলিঙ্গ হয়ে সব সময় মানুষের পাশে থাকবে ভালোবাসার ‘বন্ধন পিরোজপুর’। করোনাকালীন এই সেবা গরীব অসচ্ছল মানুষদের জন্য সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। যতদিন সংকট সংশয় থাকবে ততদিন ডাক্তারের প্রেসক্রিপশন সাপেক্ষে গরিব অসচ্ছল মানুষদের বিনামূল্যে আমরা সেবা দিয়ে যাবো।

উল্লেখ্য, ‘বন্ধন পিরোজপুর’ সংগঠনটি শুরু থেকেই গরিব ও অসচ্ছল মানুষের চিকিৎসা সেবা প্রদানসহ তাদের আর্থ-সামজিক উন্নয়নে সহায়তা করে চলছে।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,ফিচার,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,লাইফস্টাইল,সারাদেশ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.