আজ- রবিবার, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জুন, ২০২১ ইং

ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকবেলায় প্রস্তুত পিরোজপুরের প্রশাসন

ঘূর্ণিঝড় ইয়াস ধেয়ে আসলেও পিরোজপুর জেলার সাতটি উপজেলার আবহাওয়া স্বাভাবিক রয়েছে। শনিবার সকাল থেকেই সারাদিন উতপ্ত আবহাওয়া বিরাজমান ছিলো। এখন পর্যন্ত ঘূর্ণিঝড় ইয়াস এর তেমন কোন প্রভাব দেখা যায় নি জেলার কোন উপজেলায়। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সকল উপজেলা গুলোতে চলছে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস মোকাবেলায় ব্যাপক প্রস্ততি। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির মিটিং করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের তথ্যমতে জেলায় ২৩৫ টি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তত করার কাজ চলছে। সতর্ক সংকেত বৃদ্ধি পেলে বিভিন্ন স্কুল কলেজ সহ মোট ৫৫০ টি আশ্রয় কেন্দ্র খুলে দেয়া হবে বলে জানানো হয়। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে একটি ও সাত উপজেলায় ৭ টি মোট ৮ টি কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। জেলায় ৭ উপজেলায় ৭ টি মেডিকেল টিম খোলার প্রস্তত করা হয়েছে। এছাড়াও ঘূর্ণিঝড় মোকাবেলায় স্কাউট, রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির মিলিয়ে প্রায় ১৫৫০ জন স্বেচ্ছাসেবকদের প্রস্তুত রাখা হয়েছে। পর্যাপ্ত শুকনা খাবার সহ সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহনের কাজ করছে প্রশাসন।

পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, আমরা আজ শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির মিটিং করেছি। জেলার ৭ উপজেলায় ২৩৫টি আশ্রয় কেন্দ্র্র প্রস্তুতের কাজ চলছে। এ সব আশ্রয় কেন্দ্রগুলোতে থাকার জন্য উপযুক্ত করা হয়েছে। সেখানে যথাযথবাবে বিদ্যুৎ সংযোগ, পানির ব্যবস্থা ও পয়: নিষ্কাসনসহ আশ্রয় কেন্দ্রে থাকাদের জন্য শুকনো খাবারের ব্যবস্থা করা হবে। নদী তীরবর্তী এলাকা ও চর এলাকায় মাইকিং করে জনগণকে নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে। মঠবাড়িয়ার, ভান্ডারিয়া ও ইন্দুরকানী উপজেলার বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার মানুষদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়ার কাজ চলমান আছে।

 

বিভাগ: অন্যান্য,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,লাইফস্টাইল,সারাদেশ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.