আজ- রবিবার, ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় লকডাউন নিয়ে হামলা চার গ্রাম পুলিশসহ আহত ৭

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় করোনা সংক্রমন রোধে প্রশাসনের নির্দেশিত লকডাউন ভেঙ্গে চার গ্রাম পুলিশের ওপর হামলা চালিয়েছে একদল উচ্ছৃংখল জনতা। আজ মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে উপজেলার ধাওয়া ইউনিয়নের ফুলতলা বাজার মোড়ে চার গ্রাম পুলিশ দায়িত্ব পালন কালে এ হামলার শিকার হয়ে গুরুতর আহত হন। এসয় অপরপক্ষে আরও তিনজন আহত হয়। আহতদের ভা-ারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কপপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
আহতরা হলেন ধাওয়া ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ আবুল হোসেন মৃধা (৩০), জামাল আকন (৪০), নূরুল ইসলাম হাওলাদার (৫০) ও এনামুল হাওলাদা (৩৫)। এদের মধ্যে জামাল আকন হাসপাতালে চিকিৎসাধিন বাকী আহত তিন গ্রাম পুলিশ সদস্যকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।
এ ঘটনায় জড়িত থাকায় পুলিশ ঘটনাস্থল হতে পূর্ব ধাওয়া গ্রামের নিরু মিয়া তালুকদারের দুই ছেলে রাজু তালুকদার ও মিরু তালুকদারকে আটক করেছে।
থানা ও স্থানীয়দের সূত্রে জানাগেছে, গত ২০দিন আগে ধাওয়া গ্রামে এক স্কুল ছাত্র করোনা ভাইরাস উপসর্গ নিয়ে মারা গেলে এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পড়ে। প্রশাসন পুরো ধাওয়া ইউনিয়ন ঘটনার দিনই লকডাউন ঘোষণা করে। সেই থেকে চার গ্রাম পুলিশ ওই ইউনিয়নের ফুলতলা বাজারে লকডাইন নিশ্চিত করতে দায়িত্ব পালন করছিলো। আজ মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে ফুলতলা বাজারে কতিপয় মানুষ লকডাউন ভঙ্গ করে ইচ্ছেমত ঘোরাফেরা করছিলো। এনিয়ে চার গ্রাম পুলিশ সদস্য লকডাউন ভঙ্গকারিদের শাসায় । এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায় হাটুরে লোকজন ওই চার গ্রাম পুলিশের ওপর চড়াও হয়ে হামলা চালায়। এসময় গ্রাম ও হাটুরে লোকজনের মারামরির ঘটনায় দুই পক্ষে সাতজন আহত হয়।
পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল হতে রাজু তালুকদার ও তার ভাই মিরু তালুকদারকে আটক করে। পরে পুলিশ প্রহরায় তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ।
এ বিষয়ে ভা-ারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম মাকসুদুর রহমান ঘটনা সাংবাদিকদের নিশ্চত করে বলেন, হামলায় জড়িত দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের হলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিভাগ: অন্যান্য,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,সারাদেশ