আজ- শুক্রবার, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরে অসহায় কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিল যুব রেড ক্রিসেন্ট

পিরোজপুরে অসহায় ও শ্রমিক অভাবে থাকা কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিলো যুব রেড ক্রিসেন্ট পিরোজপুর ইউনিট। বৃহষ্পতিবার দিনব্যাপী পিরোজপুর পৌরসভার শিকারপুর এলাকায় সন্তোষ ডাকুয়া নামের এক কৃষকের মাঠের পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছে যুব রেড ক্রিসেন্ট পিরোজপুর ইউনিটের স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ।
এসময় ইউনিটের যুবপ্রধান শুভদ্বীপ শিকদার শুভ, উপ-যুবপ্রধান মোঃ আব্দুল কাইউম, জনসংযোগ ও পরিকল্পনা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান তানভীর খান, প্রশিক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান পলাশ মিস্ত্রি, বন্ধুত্ব বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সিফাতুল্লাহ রানা, জনসংযোগ ও পরিকল্পনা বিভাগের বিভাগীয় উপ-প্রধান জুবায়ের ইসলাম সোহাগ, ক্রীড়া ও সংস্কৃতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান আছমা আক্তার, প্রশিক্ষণ বিভাগের বিভাগীয় উপ-প্রধান সুমাইয়া আক্তার তন্নী, স্বেচ্ছাসেবক জুলকার নাইম তীব্র, অলিউল্লাহ, প্রিতম মন্ডল, আরমান ও সাদিয়া জাহানসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
কৃষক সন্তোষ ডাকুয়া বলেন, আমি সত্যি আশা করি নাই যুব রেড ক্রিসেন্ট কে বললে তারা এমন ভাবে কাজ করে দেবে। আজ রেড ক্রিসেন্টের লোকজন না থাকলে আমার মাঠের পাকা ধান গুলো নষ্ট হয়ে যেতো বৃষ্টির পানিতে। তাদের সহযোগীতায় আজ ধান গুলো ঘরে তুলতে পেরেছি।
সদস্যরা জানান, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি সদর দপ্তরের নির্দেশনায় ও নিজ উদ্যোগে আমরা এ কাজ করেছি। এছাড়াও কৃষক সন্তোষ ডাকুয়া আমাদের কাছে এসে ধান কাটার জন্য শ্রমিকের কথা বললে আমরা নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে তাকে সহায়তা করেছি।
ইউনিটের ইউনিট লেভেল অফিসার বলেন, রেড ক্রিসেন্ট পিরোজপুর ইউনিটের এমন সহযোগীতামূলক উদ্যোগেকে আমি সাধুবাদ জানাই। প্রতিটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনেরই এমনভাবে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানো উচিৎ। কারন মানুষের সমস্যায় মানুষই তো সব সময় এগিয়ে আসে।
ইউনিটের সেক্রেটারী এ্যাড. শাহ আলম বলেন, ইউনিটের যুব সদস্যরা হঠাৎ করেই নিজ উদ্যোগ নিয়েছে আমার অনেক ভালো লেগেছে। আমি ইউনিটের সেক্রেটারী হিসেবে ওদের পাশে ছিলাম, আছি থাকবো। আর মানুষের বিপদের সময়ে রেড ক্রিসেন্ট সব সময়ই কাজ করেছে। মানুষের বিপদের দিনে তাদের সহায়তায় আমি তাদের ধন্যবাদ জানাই।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,সারাদেশ