আজ- রবিবার, ২রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই মে, ২০২১ ইং

পিরোজপুরে করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি: স্বাস্থ্যবিধি না মানায় চলছে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

পিরোজপুরে জেলার ৭ টি উপজেলায় বেড়ে চলছে করোনা রোগীর সংখ্যা। বর্তমানে জেলায় ৭২ জন রোগী করোনায় আক্রান্ত রয়েছে। গত কয়েকদিন আগেও যেখানে জেলায় করোনা সংক্রমনের হার ছিলো মাত্র ২ শতাংশ কিন্ত বর্তমানে জেলায় করোনায় আক্রান্তের হার ১৯ শতাংশের বেশি রয়েছে বলে দাবি স্বাস্থ্যবিভাগের। তবে মোবাইল কোর্টে জরিমানা করা হলেও মেনে চলছে না স্বাস্থ্যবিধি। আজ শুক্রবার পিরোজপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলার বাজার, চায়ের দোকান সহ বিভিন্ন জনবহুল এলাকা থেকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার মাধ্যমে জরিমানা কওে চলছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ। তবে জেলা হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেলেক্সেগুলো আইসলিসনে কোন করোনা রোগী ভর্তি নেই। আক্রান্ত সব রোগীরা বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন আবার কেউ কেউ জেলার বাহিরেও ছুটছেন উন্নত চিকিৎসার জন্য।

সিভিল সার্জন হাসনাত আবু জাকি জানান, জেলা ৭টি উপজেলায় ১৯ শতাংশের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় করোনা পরিক্ষা করা হয়েছে মাত্র ৬ হাজার ৭শত ৩৫ জনকে। এ পর্যন্ত ১২ শত ৬৩ জন রোগী করোনা পজেটিভ হলেও এদেও মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ১১ শত ৬৫ জন রোগী বর্তমানে করোনা আক্রান্ত ৭২ জন রোগী এবং মারা গেছে ২৬ জন। জেলায় করোনা টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন ৪৪ হাজার ৫শত ৬৮ জন এবং টিকা প্রদান করা হয়েছে ৩৪ হাজার ৭শত ৭২ জনকে। পিরোজপুরে জেলা হাসপাতাল সহ পাচটি উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেলেক্সে এ প্রতিদিন প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ জন রোগীর করোনা পরিক্ষা করার জন্য পাঠানো হয়।

জেলা প্রশাসক আবু আলী মো: সাজ্জাদ হোসেন বলছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলার ফলে জেলার বিভিন্ন উপজেলায় ভ্রাম্যমান আদালত চলমান রয়েছে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাগণ এবং সকল নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটগণ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার জন্য মাঠে রয়েছে। স্বাস্থ্যবিধির মেনে না চললে আরো কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,মিডিয়া,লাইফ স্টাইল,সারাদেশ

আপনার মতামত দিন

Your email address will not be published.