আজ- শুক্রবার, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরে কাউখালিতে মামলার তদন্ত করতে গিয়ে হামলার শিকার পুলিশ কর্মকর্তা।

পিরোজপুরের কাউখালীতে মামলা তদন্ত করতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছে জেলার কাউখালী থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা। এ সময় হামলাকারীরা ওই কর্মকর্তাকে কুপিয়ে জখম করে। আজ শুক্রবার সকালে কাউখালী উপজেলার জয়কুল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে কাউখালী থানার ওসি মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার। আহত ওই কর্মকর্তার নাম রফিকুল ইসলাম। তিনি কাউখালী থানার সহকারী উপ পরিদর্শক (এএসআই) হিসেবে কর্মরত। আহত ওই কর্মকর্তাকে প্রথমে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করা হয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য হাফিজুর রহমান শাহিন জানান, কাউখালী থানার এএসআই রফিকুল ইসলাম একজন পুশিল সদস্য নিয়ে ওই গ্রামের হায়দার আলীর বাড়িতে গেলে তিনি ও তার স্ত্রী হেপি বেগম গাছ কাটা দা দিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়। এসময় এএসআই রফিকুল ইসলাম আত্মরক্ষা করতে গেলে তার দুই হাতের রগ কেটে যায়। বর্তমানে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে।

কাউখালী থানার ওসি মোঃ কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, প্রতিবেশি এক নারীকে লাঞ্চিত করার ঘটনায় উপজেলার জয়কুল গ্রামের হায়দার হাওলাদারের বিরুদ্ধে কাউখালী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। এ মামলার তদন্ত করতে তার বাড়িতে এক পুলিশ সদস্যকে নিয়ে যান রফিকুল। এ সময় ঘরের মধ্যে প্রবেশের সময় হঠাৎকরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে রফিকুলকে কুপিয়ে জখম করে হায়দার। এতে হাত ও মাথায় মারাত্মকভাবে জখমপ্রাপ্ত হন রফিকুল। এ সময় স্থানীয়রা তাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে বরিশালে উন্নত চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

বিভাগ: জাতীয়,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,সারাদেশ