আজ- বৃহস্পতিবার, ৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরে ঘুর্ণিঝড় ‘মোখা’ মোকাবেলায় প্রস্ততি সভা

পিরোজপুর : বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত নিন্মচাপের কারণে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’ মোকাবেলায় প্রস্ততি সভা করেছে পিরোজপুরের জেলা প্রশাসন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে প্রস্ততি সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান। এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রলিশ সুপার মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক মনিরা পারভীন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান খালেক। এসময় ফয়ার সার্ভিস, পানি উন্নয়ন বোর্ড, জেলা তথ্য অফিস, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা, জেলা কৃষি কর্মকর্তা সহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’ মোকাবেলায় জেলার ৭টি উপজেলায় ২১৩ টি সাইক্লোন শেল্টার প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছড়াও ১৯৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রস্তত রাখার কাজ চলছে। এসব সাইক্লোন শেল্টারে প্রায় ২ লাখ লোক আশ্রয় নিতে পারবে। ৭ টি উপজেলায় একটি করে ৭টি এবং জেলা সদরে একটি মোট ৮টি কন্ট্রোলরুম খোলা হয়েছে। ৭টি উপজেলাতে ৬৩টি মেডিকেল টিম প্রস্তত রাখা হয়েছে। এছাড়াও দুর্যোগ পরবর্তী সময়ে জরুরী ভিত্তিতে সেবা দেয়ার জন্য সিপিবির ১৭০০ সদস্য ও স্কাউট এর ৩৫০ জন সদস্য প্রস্তত রয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জাহেদুর রহমান জানান, ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’ মোকাবেলায় আমরা সব ধরনের প্রস্ততি নিয়েছি। আমাদের ২১৩ টি সাইক্লোন শেল্টার এবং ১৯৪ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রস্তত রয়েছে। সরকারের দেয়া ৮ লাখ টাকা ও ৪০০ মেট্রিকটন চাল মজুদ রয়েছে। এছাড়াও আমাদের জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনকে ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’ মোকাবেলার জন্য ৮টি কন্ট্রোল রুমে জরুরী নাম্বার রাখা হয়েছে। প্রয়োজনে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ করতে পারবে। সকল দপ্তরকে ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’ মোকাবেলায় প্রস্তত থাকতে বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত এ বছরের অক্টোবর মাসে ঘুর্ণিঝড় সিত্রাং আঘাত হেনেছিল পিরোজপুর সহ দক্ষিণাঞ্চলের কয়েকটি জেলায়। তবে এতে পিরোজপুরে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি।

 

 

 

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,ফিচার,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,লাইফ স্টাইল,সারাদেশ