আজ- শনিবার, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরে দেড় কোটি টাকার ভারতীয় কাপড় সহ গ্রেপ্তার-৪

পিরোজপুরের কঁচা নদীতে অভিযান চালিয়ে দেড় কোটি টাকার ভারতীয় কাপড় সহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আজ বুধবার রাত ৪ টার দিকে কঁচা নদীতে অভিযান চালিয়ে একটি ট্রলার থেকে ভারতীয় কাপড় সহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলো বড়গুনা জেলার পাথরঘাটা উপজেলার বড় পাথরঘাটা এলাকরা নাজেম গোলদারের পুত্র জামাল গোলদার (৫০), বরিশাল জেলার চরমোনাই এলাকার মৃত ইন্তেজ আলী হাওলদারের পুত্র সেলিম হাওলাদার ( ৫৬ ) একই এলাকার কালাম খলিফার পুত্র সুরুজ খলিফা(২৫) এবং ভোলা জেলার লালমোহন উপজেলার পরাজগঞ্জ এলাকার খোকন মিন্ত্রীর পুত্র জুয়েল মিস্ত্রী। পুলিশ এ সময় ৭০ ফুট লম্বা একটি ষ্টীলবডির ট্রলার জব্দ করে।
পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, নদী পথে চোরাচালন ও মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে পুলিশ কঁচা নদীতে অভিযান চালানো আজ রাত ৪ টার দিকে তার নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অপরাধ ও প্রশাসন মোল্লা আযাদ হোসেন, গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মিজানুল হক, সাব ইন্সপেক্টর দেলোয়ার হোসেন জসিম অন্যান্য অফিসার ও ফোর্সসহ হুলারহাট সংলগ্ন কঁচা নদীর দক্ষিণ দিক থেকে আগত একটি ষ্টীলবডি ট্রলার দ্রুত গতিতে চালিয়ে যাওয়ার সময় ডিবি পুলিশ তাদের ট্রলারটি থামানোর জন্য সংকেত দেয়। কিন্তু ডিবি পুলিশের সংকেত উপেক্ষা করে ট্রলারটি দ্রুত বেগে চালিয়ে হুলারহাট খালের ভিতরে ঢুকে বাজার ব্রীজের পশ্চিম পাশে খালের দক্ষিণ পাড়ে রেখে পালিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ ট্রলারে থাকা ৪ জনকে আটক করে। এ সময় ট্রলারে তল্লাশী চালিয়ে ট্রলারের মধ্যে বিভিন্ন সাইজের ৬০ বান্ডিল (গাই ) ভারতীয় তৈরী বিভিন্ন রকমের শাড়ী, থ্রী পিস, চাদর উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃত এ মালামালের বাজার মূল্য আনুমানিক দেড় কোটি টাকা।
পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান আরো জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে অবৈধভাবে চোরাকারবারীরা ভারতীয় তৈরী পোষাক চোরাই পথে এনে আর্থিক ভাবে লাভবান হওয়ার উদ্দেশ্যে এ মালামালসমূহ বিক্রির জন্য নিয়ে যাচ্ছিল। আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,সারাদেশ