আজ- বৃহস্পতিবার, ১৪ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বাঁচতে চায় পিরোজপুরের আসমা

পিরোজপুর শহরের বেকুটিয়ার কুমিরমারা এলাকার মেয়ে আসমা আক্তার। দীর্ঘদিন ধরে পেটে টিউমার নিয়ে অসুস্থ্য অসহায় জীবন যাপন করে আসছে আসমা (১৮)। তিন মাস আগে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে ঢাকায় মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেখালে ডাক্তার জানায় তার পেটে একটি টিউমার হয়েছে দ্রুত অপারেশন করে টিউমার অপসারন করতে হবে। কিন্ত টাকার অভাবে টিউমার অপারেশন করাতে পারতেছে না আসমার পরিবার। ডাক্তার আরো বলেন দ্রুত টিউমারটি অপারেশন না করানো হলে আসমার জীবনের ঝুঁকিতে পড়তে পারে। অসুস্থ্য আসমা বেকুটিয়া কুমিরমার এলাকার আলম সেখ ও শাহিনুর বেগমের দ্বিতীয় মেয়ে।
আসমার মা শাহিনুর বেগম জানান, “নুন আনতে পান্তা ফুরায়” কিভাবে মেয়ের চিকিৎসা করাবো। ঢাকার ডাক্তার বলেছে দ্রুত আমার মেয়ের টিউমারটি অপারেশন করাতে কিন্ত কিভাবে আমরা অপারেশন করাবো তাই পথে পথে মানুষের কাছে সাহায্য চেয়ে বেড়াই। যা সাহাস্য পাই তাতে আসমার অপারেশন করানো সম্ভব নয়। আসমার বাবা আলম সেখ দীর্ঘদিন মানষিক ভারষম্যহীন অবস্থায় ছিলেন বর্তমানে সুস্থ্য হলেও কোন কাজ করতে পারে না। অপারেশন করাতে না পারলে আমার মেয়েকে বাঁচাতে পারবো না। আমার মেয়েকে বাঁচান।
অসুস্থ্য আসমা আক্তার বলেন, আমি বাঁচতে চাই। আমার পেটে অনেক ব্যাথা করে খাবার খেতে পারি না। অনেক কষ্ট হয় আমি এই কষ্টের জীবন থেকে মুক্তি চাই আমি বাঁচতে চাই আমাকে বাঁচান।
আসমার পরিবারের দাবী আসমার দ্রুত চিকিৎসা করানো দরকার। তার টিউমারটি অপারেশন করাতে যে পরিমান টাকা প্রয়োজন আমাদের কাছে সে পরিমান টাকা নেই। তাই সমাজের স্বহৃদয়বান ব্যাক্তিরা যাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাহলে আসমাকে বাঁচাতে পারবো।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,ফিচার,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,সারাদেশ