আজ- শনিবার, ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মা কে শারীরিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে


পিরোজপুর সদর উপজেলার শংকরপাশা ইউনিয়নের চিথলিয়া গ্রামে ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধ মাকে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে তার নিজের সন্তানের বিরুদ্ধে। এই নির্যাতনের প্রতিকার চেয়ে বড় ছেলে মোস্তফা আকনের বিরুদ্ধে পিরোজপুর সদর থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী মা রিজিয়া বেগম (৬৫)। ২২ বছর পূর্বে রিজিয়ার স্বামী ছত্তার আকন মারা গেছে।
তিনি অভিযোগ করেন, বিভিন্ন অযুহাতে তার ছেলে মোস্তফা তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করার পাশাপাশি শারীরিকভাবেও নির্যাতন করে। একাধিকবার তাকে মেরে আহত করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
ওই নারী জানান, তার চার সন্তানের মধ্যে একজন মারা গেছে। মেজ ছেলে মোশারেফ আকন সৌদি আরবে থাকেন এবং ছোট ছেলে মাহবুব আকন কুয়েত থাকেন। বর্তমানে তিনি ছোট ছেলে মাহবুবের সংসারে থাকছেন।
তার অভিযোগ নিজের জমি বিক্রি করে ছোট ছেলেকে বিদেশ পাঠানোর কারণে তার উপর ক্ষিপ্ত হয় মোস্তফা এবং মোশারেফ। এরপর থেকেই তাকে বিভিন্ন সময় কারণে অকারণে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করাসহ মারধোর করছে মোস্তফা। এছাড়া মেঝ ছেলে মোশারেফও বিদেশ থেকে ফোন করে তার সাথে খারাপ ব্যবহার করে।
ছেলেদের এই অত্যাচার সইতে না পেরে তিনি গত মঙ্গলবার পিরোজপুর সদর থানায় মোস্তফার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।
তবে নিজের মায়ের উপর কোন ধরণের নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে মোস্তফা। সে জানান তার মা এবং সে আলাদা বাড়িতে বসবাস করে। এছাড়া তার মায়ের একখন্ড জমি বিক্রি নিয়ে তার মারা যাওয়া ভাইয়ের স্ত্রীর সাথে দ্বন্দ্ব রয়েছে। এ নিয়ে মাঝে মধ্যে বাগবিতন্ডা হয়।
মোস্তফার দাবি সে পরিবারের বড় ছেলে। তাই পরিবারের কারো সাথেই কোন প্রকার সমস্যা হলেই সে দায় তার উপর চাপানো হয়।
তবে বৃদ্ধ ওই নারীকে নির্যাতনের বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানান পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ নূরুল ইসলাম বাদল। তদন্ত শেষে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,সারাদেশ