আজ- শুক্রবার, ২২শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সেঞ্চুরি, ডাবল সেঞ্চুরি দেওয়াতে ক্লান্তি নেই বাংলাদেশের!

উপহার শুধু নয়; এ যেন রীতিমতো জোর করে গছিয়ে দেওয়া উপঢৌকন! ২০ রানে অপরাজিত ব্যাটসম্যান যখন তিন বলের মধ্যে দুবার ক্যাচ দিয়েও বেঁচে যান, সেই ব্যাটসম্যানই যখন ঝড়ের বেগে রান তুলে ডাবল সেঞ্চুরি করে ফেলেন; এটাকে শুধু উপহার বলা যায় না। এমনই উপঢৌকন পেয়েছেন রস টেলর। সাড়ে তিন বছর পর করেছেন ডাবল সেঞ্চুরি।

প্রতিপক্ষের ব্যাটসম্যানকে ডাবল সেঞ্চুরি উপহার দিতে বাংলাদেশ অবশ্য বরাবরই অকৃপণ। কিংবা ডাবল সেঞ্চুরি করার জন্য প্রতিপক্ষের পছন্দের দলও বাংলাদেশ, কথাটা এভাবেও বলা যায়। বাংলাদেশ দলের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ২৫টি ডাবল সেঞ্চুরি হয়েছে। বাংলাদেশ টেস্ট আঙিনায় পা রাখার পর কোনো দলের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড এটিই। এই সময়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে হয়েছে ২৪টি ডাবল সেঞ্চুরি। তবে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষকে ২৫টি ডাবল সেঞ্চুরি দিয়েছে ১১৪ ম্যাচে, যেখানে পাকিস্তান এই সময়ে খেলেছে ১৫৩ ম্যাচ।

শুধু ডাবল সেঞ্চুরি নয়, সেঞ্চুরি দেওয়ার ব্যাপারেও বাংলাদেশ অকৃপণ ছিল। বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্টে সেঞ্চুরি হয়েছে ১৬৮টি। বাংলাদেশের অভিষেকের পর কোনো দলের বিপক্ষে সর্বোচ্চ সেঞ্চুরির হিসাবটি অবশ্য ইংল্যান্ডের নামের পাশে। এই সময়কালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট সেঞ্চুরি হয়েছে ২৩৬টি। তবে ইংল্যান্ড ম্যাচও (২৩৭টি) খেলেছে অনেক বেশি। ১১৪ ম্যাচে ১৬৮ সেঞ্চুরি মানে, ম্যাচে গড়ে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১.৪৭টি সেঞ্চুরি হয়েছে। প্রায় ২ ম্যাচে তিনটি করে সেঞ্চুরি। যেখানে ম্যাচপ্রতি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেঞ্চুরির হার দশমিক ৯৯।

সেঞ্চুরি দেওয়ার হারের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের চেয়ে এগিয়ে আছে কেবল আফগানিস্তান। ১ ম্যাচে ২টি ডাবল সেঞ্চুরি দিয়েছে আফগানরা। তবে তারা খেলেছেও মাত্র একটি টেস্ট।

দলগুলোর বিপক্ষে সেঞ্চুরি ও ডাবল সেঞ্চুরি:

দল ম্যাচ ২০০ ১০০
বাংলাদেশ ১১৪ ২৫ ১৬৮
পাকিস্তান ১৫৩ ২৪ ১৪৭
ইংল্যান্ড ২৩৭ ২১ ২৩৬
ভারত ২০০ ২১ ২১৮
শ্রীলঙ্কা ১৭৮ ১৮ ১৮১
অস্ট্রেলিয়া ২১৪ ১৭ ১৭৬
দ. আফ্রিকা ১৮৭ ১৬ ১৪৯
নিউজিল্যান্ড ১৫২ ১২ ১৬৪
ওয়েস্ট ইন্ডিজ ১৭৮ ১১ ২০২
জিম্বাবুয়ে ৬২ ৭৩
আফগানিস্তান

* ২০০০ সালের ১০ নভেম্বরের পর থেকে

বিভাগ: খেলার খবর