আজ- রবিবার, ১লা বৈশাখ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১৪ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরে দেড় কোটি টাকার সুপারি চোরাচালানের মামলা ইউপি তুষখালী চেয়ারম্যান কারাগারে

পিরোজপুরের নেছারাবাদ উপজেলায় অবৈধপথে ভারতে দেড় কোটি টাকার সুপারি চোরাচালান মামলার আসামী তুষখালি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদারকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। সোমবার পিরোজপুর চীফ জুডিসিয়াল আদালতের ম্যাজিট্রেট মো: মাসুম আসামীর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান। আসামী জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার তুষখালি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদার (৬০) একই এলাকার তুষখালী এলাকার মো: হোসেন আলী হাওলাদারের পুত্র।

আদালতের এপিপি এ্যাডভোকেট শ. ম. হায়দার আলী জানান, ২০২৪ সালের ২৪ জানুয়ারী  রাতে পুলিশ সন্ধ্যা নদীর বিনয়েকপুর এলাকার নদীতে অভিযান চালিয়ে দুটি মাছ ধরার ট্রলারে অভিযান চালিয়ে প্রায় দেড় কোটি টাকা মূল্যের সুপারী উদ্ধার করে । এ সময় ট্রলার থেকে পুলিশ তিন জনকে আটক করে এবং অন্য কয়েকজন পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ বাদী হয়ে সুপারি চোরাচালানের অভিযোগে নেছারবাদ থানায় আটক মো: হারুন মাঝি, নূর নবী মাঝি, অলি হাওলাদার সহ তুষখালি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদার নামীয় আসামী করে মামলা দায়ের করে। এরপর থেকে মঠবাড়িয়া উপজেলার তুষখালি ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদার উচ্চ আদালতের আদেশে জামিনে ছিলেন। জামিনের মেয়াদ শেষে হয়ে তিনি চীফ জুডিসিয়াল আদালরের ম্যাজিট্রেট আদালতে জামিনের জন্য উপস্থিত হলে আদালতের বিচারক তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণ করে।

প্রসঙ্গত, ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান শাহজাহান হাওলাদারের বিরুদ্ধে চোরাচালানের অভিযোগে এর আগেও একাধিক মামলা হয়েছিল।

বিভাগ: অন্যান্য,জাতীয়,টপ নিউজ,ফিচার,বরিশাল বিভাগ,ব্রেকিং নিউজ,মিডিয়া,রাজনীতি,সারাদেশ