আজ- শুক্রবার, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পিরোজপুরে ১০৩ টাকায় পুলিশ কনস্টেবলে চাকুরি

মাত্র ১০৩ টাকায় পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকুরি দিয়েছেন পিরোজপুরের নবাগত পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান। ৩ টাকা মূল্যের একটি ফরম ও ১০০ টাকার ব্যাংক ড্রাফট ছাড়া আর একটি টাকাও দিতে হয়নি চাকুরী প্রার্থীদের। এত সহজেই মিলে গেলো সোনার হরিণখ্যাত সরকারী চাকুরি।

চাকুরী প্রার্থীদের অভিভাবকরা বলছেন, পিরোজপুরের ইতিহাসে এবারই প্রথম যোগ্যতার ভিত্তিতে ও কোন বাড়তি অর্থ লেনদেন ছাড়াই নিয়োগ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে।

কোন ঘুষ দিতে না হওয়ায় এবং যোগ্যতার ভিত্তিতে চাকুরী পাওয়ায় খুশি শাহ জালাল শান্ত, আয়শা ও শ্রবণি ইসলামরা। তারা জানান, আমরা এতদিন শুনে এসেছি পুলিশে চাকুরি পেতে হলে কয়েক লক্ষ টাকা ঘুষ লাগে। কিন্তু এখানে পরিক্ষা দিলাম চাকুরিও পেলাম। মাত্র ১০৩ টাকার উপরে আমাদের এক টাকাও বেশি গুনতে হয়নি। তাই পিরোজপুর পুলিশ সুপারকে অসংখ্য ধন্যবাদ, তিনি নিয়োগের আগে যা বলেছিলেন তার সাথে বাস্তবতার মিল রয়েছে।

পিরোজপুর পুলিশ সুপার হায়াতুল ইসলাম খান জানান, আমরা এবার কনস্টেবল নিয়োগে কোনো রকমের ঘুষ-দুর্নীতির অপকর্ম কেউ করতে না পারে সে ব্যাপারে কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছি এবং বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করে সবাইকে সচেতন করেছি। আমাদের নিয়োগ প্রক্রিয়া শতভাগ স্বচ্ছ হয়েছে। তিনি আরো জানান, যারা পুলিশে চাকরি নিতে আসেন তারা প্রান্তিক ও গরিব। তাদের পারিবারিক অবস্থা অত্যন্ত দুর্বল। নিয়োগগ্রাপ্ত কয়েকজনের বাড়ির খবর নিয়ে জেনেছি অনেকেই কৃষক ও দরিদ্র পরিবারের সন্তান। তাই আমি চেষ্টা করবো এমন ধারাবাহিকতা সব সময় যেন অব্যাহত থাকে।

উল্লেখ্য, পিরোজপুর জেলায় এবার পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকরি পেয়েছেন ৩৩ জন। এরমধ্যে নারী-১৩ ও পুরুষ-২০ জন।

বিভাগ: অন্যান্য,চাকরির খবর,জাতীয়,তথ্য প্রযুক্তি,ফিচার,বরিশাল বিভাগ,সারাদেশ