আজ- শুক্রবার, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৯ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

১০৭ প্রতিষ্ঠানের সবাই ফেল

মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফল আজ সোমবার (৬ মে) প্রকাশিত হয়েছে। এবার গড় পাসের হার ৮২.২০ শতাংশ। অবশ্য এবার ১০৭ প্রতিষ্ঠানের সবাই ফেল করেছে।

আজ সোমবার (৬ মে) সারাদেশে একযোগে ৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের এসএসসি, মাদরাসা বোর্ডের দাখিল ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এসএসসির ফল প্রকাশ করা হয়।

সকাল সাড়ে ১০টায় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি রাজধানীর সেগুনবাগিচায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে এ ফলাফলের পরিসংখ্যান তুলে ধরেন।

সোমবার রাজধানীর আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই ফল ঘোষণা করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তবে ফল প্রকাশের আগে লন্ডনে অবস্থানরত প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী। এ সময় তিনি উত্তীর্ণদের অভিনন্দন জানান তিনি।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীর একটি শুভেচ্ছা বাণী পড়ে শোনান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, শিক্ষা সচিব মো: সোহরাব হোসাইন প্রমুখ।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি জানান, এবার এসএসসি ও সমানের পরীক্ষায় ২১ লাখ ২৭ হাজার ৮১৫ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১৭ লাখ ৪৯ হাজার ১৬৫ জন। উত্তীর্ণদের মধ্যে ৮ লাখ ৬৬ হাজার ৯৪১ জন ছাত্র ও ৮ লাখ ৮২ হাজার ২২৪ জন ছাত্রী।

তিনি বলেন, ‘আটটি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে পাসের হার ৮২.৮০ শতাংশ, মাদরাসা বোর্ডে পাসের হার ৮৩.০৩ ও কারিগরি বোর্ডে ৭২.২৪ শতাংশ।’

এবার মোট জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৫৯৪ জন। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ১ লাখ ১০ হাজার ৬২৯ জন। এবার জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীর সংখ্যা কমেছে ৫ হাজার ৩৫ জন।

গত বছর আটটি বোর্ডে পাসের হার ছিল ৭৯.৪০ শতাংশ। পাসের হার মাদরাসা বোর্ডে ৭০.৮৯ ও কারিগরি বোর্ডে ৭১.৯৬ শতাংশ ছিল। বিদেশ কেন্দ্রে পাসের হার ৯১.৯৬ শতাংশ।

এবার এসএসসিতে সাধারণ শিক্ষা বোর্ডগুলোর তত্ত্বীয় পরীক্ষা ২ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে শেষ হয় ২৬ ফেব্রুয়ারি। ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৭ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়, শেষ ৫ মার্চ।

মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের তত্ত্বীয় পরীক্ষা ২ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে ২৭ ফেব্রুয়ারি শেষ হয় এবং ব্যবহারিক পরীক্ষা ২৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়ে শেষ হয় ৬ মার্চ।

বিভাগ: শিক্ষাঙ্গন